আজ ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২রা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং

জয়ের নায়ক মুস্তাফিজ

পরতে পরতে রোমাঞ্চ ছড়ানো ম্যাচে বাংলাদেশ শেষ পর্যন্ত জয় পেয়েছে তিন রানে। একবার ম্যাচ আফগানদের দিকে হেলে যায় তো আরকেবার টাইগারদের দিকে। এশিয়া কাপ সুপার ফোরের এমন শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছেন মাশরাফিরা।

শেষ ওভারে প্রয়োজন ছয় রান। মাশরাফি বল তুলে দেন মুস্তাফিজের হাতে। অধিনায়কের দেওয়া গুরুদায়িত্ব মুস্তাফিজ পালন করেছেন শতভাগ। মায়াবী স্লোয়ার-কাটারে দ্য ফিজ দেন মাত্র তিন রান। সঙ্গে তুলে নেন গ্রুপপর্বের ম্যাচে ত্রাস সৃষ্টি করা রশিদ খানের উইকেট। বাংলাদেশও জয় পায় তিন রানে।

আবুধাবি শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে টসে জিতে আগে ব্যাট করে আফগানিস্তানকে ২৫০ রানের টার্গেট দেয় বাংলাদেশ। টার্গেটে খেলতে নেমে আফগানিস্তান ৫০ ওভারে সাত উইকেট হারিয়ে ২৪৬ রান তুলতে সক্ষম হয়।

বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ দুটি করে উইকেট নেন মাশরাফি বিন মর্তুজা ও মুস্তাফিজুর রহমান। সাকিব আল হাসান ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের ঝুলিতে জমা হয় একটি করে উইকেট।

আফাগানিস্তানের হয়ে সর্বোচ্চ রান করেন হাসমতুল্লাহ শাহীদি। তার ব্যাট থেকে আসে ৭১ রান। ওপেনিংয়ে মোহাম্মদ শাহজাদ করেন ৫৩ রান। এ ছাড়া আসগর আফগান ৩৯, মোহাম্মদ নবী ৩৮ রান করেন। সামিউল্লাহ সেনওয়ারি ২৩ ও গুলবাদিন নাইব ০ রানে অপরাজিত থাকেন।

এর আগে টাইগারদের ব্যাটিংয়ে সর্বোচ্চ ৭৪ রান আসে মাহমুদুল্লাহর ব্যাট থেকে। ইমরুল কায়েস ৭২ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন। এ দুজনের ১২৮ রানের জুটিতেই বিপর্যয় থেকে রক্ষা পায় বাংলাদেশ। এ ছাড়া লিটন দাস ৪১ ও মুশফিকুর রহিম ৩৩ রান করেন।

শুরুর ধাক্কাটা মুশফিক-লিটনের ৬৩ রানের জুটিতে সুন্দর ভাবেই কাটিয়ে উঠছিল বাংলাদেশ। কিন্তু রশিদ খানের এক ওভারেই সব চুরমার হয়ে যায়। লিটন দাস রশিদকে তুলে মারতে গিয়ে ধরা দেন ইহসানুল্লাহর হাতে। ফিরে যাওয়ার আগে লিটনের ব্যাট থেকে আসে ৪১ রান।

লিটন ফিরে যাওয়ার সাকিব এসেও দুই বলের বেশি খেলতে পারেননি। নিজের ভুলেই রানের খাতা খোলার আগে ফিরে যান সাজঘরে। সামিউল্লাহ সেনওয়ারির সরাসরি থ্রোতে সাকিব আউট হন। সাকিব আউট হওয়ার ছয় রানের পর দলীয় ৮৭ রানের মাথায় আবারও রান আউটের শিকার হয়ে ফিরে যান মুশফিক।

টাইগারদের ওপেনিং সমস্যা প্রকট রুপ ধারণ করেছে। দেশ থেকে তড়িগড়ি ইমরুল কায়েস ও সৌম্য সরকারকে নেওয়ার পর গুঞ্জন ছিল ওপেনিংয়ে পরিবর্তন নিয়েই নামবে বাংলাদেশ। কিন্তু টিম ম্যানেজমেন্ট লিটন-শান্তর ওপর আস্থা রাখলেও আস্থার প্রতিদান দিতে পারেননি নাজমুল হোসেন শান্ত।

আগের ম্যাচগুলোতে তিন নাম্বারে সাকিব আল হাসানকে নামতে দেখা গেলেও ব্যতিক্রম ঘটেছে আজ রোববার। শান্ত ফিরে যাওয়ার পর মাঠে আসেন মোহাম্মদ মিথুন। কিন্তু দুই বলের বেশি খেলতে পারেননি এ ডানহাতি ব্যাটসম্যান। দুই বলে এক রান নিয়ে মুজিবের বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে মাঠ ছাড়েন মিথুন।

ওপেনিংয়ে টানা ব্যর্থ হওয়ার পরও লিটন-শান্তর ওপর আস্থা রেখেছিল টিম ম্যানেজমেন্ট। ওপেনিংয়ে গত তিন ম্যাচে লিটনের ব্যাট থেকে আসে মাত্র ১৩ রান। অন্যদিকে এশিয়া কাপেই অভিষেক হওয়া নাজমুল হোসেন শান্তও ব্যর্থ হয়েছেন ব্যাট হাতে।

আফগানিস্তানের হয়ে সর্বোচ্চ তিন উইকেট নিয়েছেন আফতাব আলম। রশিদ খান ও মুজিব নেন একটি করে উইকেট। সাকিব-মুশফিক ফিরে যান রান আউট হয়ে।

Comments are closed.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap
%d bloggers like this: