আজ ২৪শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৭ই মে, ২০২১ ইং

যশোরে বিএনপি কর্মী খুনের ঘটনায় ৭জনের বিরুদ্ধে মামলা

যশোর   শহরের শংকরপুর ইসহাক সড়কের বাসিন্দা বিএনপি’র কর্মী মশিয়ার রহমান (৪৫) হত্যার ঘটনায় নিহতর স্ত্রী সেলিনা বেগম বাদী হয়ে ৭ জনের নামে কোতয়ালি মডেল থানায় এজাহার দায়ের করেছে।
হত্যাকান্ডের প্রায় ৩দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। বাদির দায়ের করা হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত আসামীরা হচ্ছে- যশোর শহরের শংকরপুর ইসহাক সড়কের মৃত আনোয়ার কুলি ওরফে আনার কুলির ছেলে গোলাম রসুল ডাবলু, একই এলাকার বাসিন্দা ওয়ার্ড কাউন্সিলর গোলাম মোস্তফার ছেলে মিশ্র, হারুন ওরফে কাঠ হারুনের ছেলে মামুন, নাছিরের ছেলে সম্রাট, মৃত ধলু মিয়ার ছেলে সানি, আব্দুর রশিদের ছেলে পারভেজ (ইন্ডিয়ান বিটির ছেলে) ও মৃত মফেজ পকেটমারের ছেলে রানাসহ অজ্ঞাতনামা ৩/৪জন।
নিহত মশিয়ার রহমানের স্ত্রী সেলিনা বেগম তার দায়েরকৃত এজাহারে বলেছেন, আসামীদের সাথে তার স্বামী পরিবার বর্গের পূর্বের শত্রুতা চলে আসছিল। গত ২৬ আগষ্ট বিকেল সাড়ে ৪ টায় ভাসুর দেলোয়ার হোসেন দুলালের ছেলে শোভন (২০) কে আসামীরা মারপিট শুরু করলে শোভনের চাচা মশিয়ার রহমান লাঠি নিয়ে আসামীদের তাড়া করলে তারা পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে বিকেল ৫ টায় আসামীরা সংঘবদ্ধ হয়ে মশিয়ার রহমানের বাড়িতে সশস্ত্র অবস্থায় ঢুকে পরে। আসামীরা মশিয়ার রহমানকে এলোপাতাড়ী ছুরিকাঘাত শুরু করে। প্রাণ বাঁচাতে মশিয়ার রহমান জনৈক হামিদ কসাইয়ের ঘরের সামনে উঠানে পৌছালে পিছু নিয়ে আসামীরা ধারালো চাকুসহ অনান্য অস্ত্র দিয়ে মশিয়ার রহমানকে আঘাত করে। পরে গুলিবর্ষণ করে চলে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষনা করে।
এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পুলিশ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। মশিয়ার রহমানের স্ত্রী মামলার বাদী সেলিনা বেগম আসামীদের ভয়ে চরম আতংকগ্রস্থ হয়ে পড়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap
%d bloggers like this: