আজ ২৪শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৭ই মে, ২০২১ ইং

শেখ হাসিনার কথা বলে শামীম ওসমান কাঁদলেন, কাঁদালেন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে খুব কাছ থেকে দেখার সৌভাগ্য হয়েছে আমার। একদিন তিনি কয়েকজন বৃদ্ধ-বৃদ্ধাকে জড়িয়ে ধরেছিলেন। এরপর হঠাৎই তার চোখে পানি দেখে আমি জিজ্ঞাসা করেছিলাম, আপা কেন কাঁদছেন। প্রধানমন্ত্রী আমাকে বলেছিলেন, শামীম, কোনো বৃদ্ধ লোক যখন আমার মাথায় হাত বোলায়, মনে হয় যেন আমার বাবা আমাকে দোয়া করছেন। কোনো বৃদ্ধাকে যখন বুকে জড়িয়ে ধরি, মনে হয় আমার মা আমাকে পরম স্নেহে জড়িয়ে ধরেছেন। ছোট শিশুরা যখন আমাকে দেখে হাসিনা হাসিনা বলে চিৎকার করে, তখন মনে হয় আমার রাসেল আমাকে ডাকছে। তাই জীবনের শেষ দিনটিও আমি এ দেশের মানুষের জন্য বিলিয়ে দিতে চাই।’ এভাবেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে খুব কাছ থেকে দেখা ঘটনার বর্ণনা দিচ্ছিলেন শামীম ওসমান। হঠাৎ করেই আবেগাপ্লুত হয়ে আওয়ামী লীগের দোর্দণ্ড প্রতাপ এই নেতার চোখ বেয়ে পানি ঝরতে শুরু করলো। আবেগঘন বক্তৃতায় পিন পতন নীরবতার মাঝেই দেখা গেল অনেকের চোখেই তখন পানি। মঙ্গলবার বিকালে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার কাশীপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৭, ৮, ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কর্মিসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে শামীম ওসমান প্রধানমন্ত্রীর জীবনী নিয়ে বক্তব্য দেওয়ার সময় এমন ঘটনা ঘটে।

শামীম ওসমান নেতাকর্মী ও আগত সাধারন মানুষের উদ্দেশ্যে বলেন, আমার বাবা, মা কেউ নেই। মা বেঁচে থাকতে তার কাছে জিজ্ঞাসা করেই রাজনীতি করেছি, সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এখন আপনারাই আমার অভিভাবক, আপনারা তৃনমূলের কর্মীরাই আমার সিদ্ধান্তের অধিকার রাখেন। কারণ, জননেত্রী শেখ হাসিনাও তৃণমূলকে ভালোবাসেন।

তিনি বলেন, নেতারা বেঈমানী করতে পারে কিন্তু কর্মীরা কখনওই বেঈমানী করেনি, করবে না। আমিও শেখ হাসিনার একজন কর্মী হয়েই থাকতে চাই। এই দেশকে রক্ষার জন্য শেখ হাসিনাকে আবারো ক্ষমতায় আনতে হবে।

কাশীপুর হাজী উজির আলী উচ্চ বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত কর্মী সভায় সভাপতিত্ব করেন ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাইফ উল্লাহ বাদল। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শওকত আলী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap
%d bloggers like this: