আজ ৩০শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১২ই এপ্রিল, ২০২১ ইং

কলাপাড়ায় সন্ত্রাস কর্তৃক স্কুল শিক্ষকের পা কর্তন – গ্রেফতার-৫

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মোঃ শাহ আলম নামের এক স্কুল শিক্ষকের বাম পা কেটে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা।

ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার (২৫ আগস্ট) সকাল আনুমানিক সাড়ে ১০.০০টার দিকে কলাপাড়া উপজেলাধীন নীলগঞ্জ ইউনিয়নের মোস্তফাপুর গ্রামে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বরিশাল শের-ই বাংলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মোঃ শাহ আলম হাওলাদার শনিবার সকালে শিশুপুত্র আফ্রিদিকে নিয়ে মোস্তফাপুর গ্রামে ভগ্নিপতি মকবুল মাষ্টারের বাড়িতে দাওয়াত খেতে যান। সেখান থেকে ফেরার পথে আগে থেকে ওৎপেতে থাকা ১০-১২ জন সশস্ত্র সন্ত্রাসী তাঁর উপর অতর্কিত হামলা চালায় এবং বাম পায়ের গোড়ালির উপর দিয়ে কেটে ঝুলিয়ে দেয়। এছাড়াও ডান পা, দুই হাত ও মাথায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে।

এ সময় হামলার শিকার হওয়া স্কুল শিক্ষক ও তাঁর শিশুপুত্রের ডাক চিৎকার শুনে আশপাশ থেকে লোকজন এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। তাৎক্ষনিক এলাকার লোকজন তাঁকে রক্তাক্ত ও জখম অবস্থায় উদ্ধার করে কলাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। তবে শিশুপুত্র আফ্রিদির কোনো সমস্যা হয়নি।

এ বিষয়ে কলাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডাক্তার শংকর কুমার পাল বলেন, আহত শাহ আলমের বাম পায়ের ৯০% কেটে ফেলেছে সন্ত্রাসীরা। হয়তো পা রক্ষা করা সম্ভব হবে না। তাছাড়া শরীরও ধারালো অস্ত্রাঘাতে অস্বাভাবিক জখম হয়েছে। আশঙ্কাজনক হওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বরিশালে প্রেরণ করেছি।

কলাপাড়া থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ আলী আহম্মেদ এ প্রসঙ্গে জানান, হামলার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে হামলায় জড়িত থাকার অভিযোগে সাইদ হাওলাদার, হোসেন হাওলাদার, হাসান খা, আব্দুর রহিম খোকন ও তাইফুর হাওলাদার নামে পাঁচ জনকে গ্রেফতার করেছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap
%d bloggers like this: