আজ ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৩শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

ফেসবুকের মেসেঞ্জারে ডিজিটাল বিপদ!

অনেকদিন পর লেখায় হাত দিলাম। অন্যভাবে বললে, দিতেই হলো। আমার বন্ধু তালিকার সচেতন-অচেতন সবাই বছরের শেষে এসে নতুন খেলায় মেতেছেন। ইনবক্স ভরে যাচ্ছে একটা লিঙ্কে। নতুন বছরের উপহার নাকি লুকিয়ে আছে লিঙ্কে!

ইস! সত্যিই যদি থাকতো। বাস্তবতা ভিন্ন। ওই লিঙ্কের ভেতর উপহার না থাকলেও লুকিয়ে আছে ডিজিটাল বিপদ।

এবার বিস্তারিত বলি। যারা ফেসবুকে লিঙ্ক পেলেই শেয়ার করতে শুরু করে দেন, তারা আগে একটু থামুন। ইউটিউব বা বিশ্বাসযোগ্য সাইটের লিঙ্ক শেয়ার করা নিয়ে সমস্যা কম। বেশি সমস্যা অজানা, অচেনা লিঙ্ক শেয়ারে। আপনার মনে হতেই পারে, ধুর! ফেসবুক-মেসেঞ্জার তো আমাদের ছেলে-বুড়ো সবার ডিজিটাল খেলনা। হ্যাঁ, তেমনই একটা ধারণা দিয়ে রাখা হয়েছে আপনাদের। এক খেলা শেষ, নতুন খেলা শুরু। কখনও শুভ সকালের জোয়ার, কখনও বিজয় দিবসে জাতীয় পতাকা, কখনও ফেসবুকের সিইওর মেসেজ। কী না শেয়ার করে চলছি আমরা!

আরও পড়ুন : মেসেঞ্জারে নতুন বছরের ‘শুভেচ্ছা’ মেসেজ থেকে সাবধান!

ইন্টারনেট জগতে স্প্যাম শব্দটা বেশ পরিচিত। আপনার কাছে কতটা? যদি অচেনা হয়ে থাকে, তাহলে খুলেই বলি। স্প্যাম হল এমন লিঙ্কের ফাঁদ, যাতে ক্লিক করলেই হ্যাক হয়ে যেতে পারে আপনার সোশ্যাল মিডিয়ার সব তথ্য, এমনকি অ্যাকাউন্টও!

ভয় লাগছে? আমি চাই এই লেখাটা হরর সিনেমার মতো আপনার মনে ভয় ধরাক। আপনার হাত কাঁপুক উৎসব এলেই অন্য কারো বানানো ফাঁদ সরল মনে শেয়ার করতে।

তবেই নিরাপদ থাকবো আমরা। সামনের বছরটা হবে সত্যিকারের শুভ নতুন বছর।

এখন তো গ্রিটিং কার্ড আর চিঠিপত্রের দিনও শেষ। একটু কষ্ট করে নিজের হাতেই টাইপ করুন না:

Happy New Year!

লেখক: মনদীপ ঘরাই, সিনিয়র সহকারী সচিব

Comments are closed.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap
%d bloggers like this: