আজ ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে এক বাড়িতেই মিললো ৩০০ বস্তা পেঁয়াজ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ রাজশাহীতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ৩০০ বস্তা পেয়াজের মজুদ পাওয়া গেছে। এই আমদানিকারকের নাম হাসিবুল ইসলাম।

আজ রোববার (১৭ নভেম্বর) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে নগরীর সাহেব বাজার মাস্টারপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে এই মজুদের সন্ধান পাওয়া যায়।

এদিকে রাজশাহী মহানগর এলাকার ওই আমদানিকারককে প্রতিদিন ৫০ বস্তা করে পেঁয়াজ বিক্রির জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি সোমবার (১৮ নভেম্বর) থেকে খুচরা বাজারে প্রতিকেজি পেঁয়াজের দাম ১৫০ থেকে ১৭০ টাকা করে নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে।

রাজশাহীর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবু আসলাম বলেন, আগামীকাল রাজশাহীতে বার্মিজ পেঁয়াজ ১৫০ থেকে ১৫৫ টাকা, দেশী পেঁয়াজ ১৭০ থেকে ১৮০ টাকায় পাইকারি ও খুচরা মূল্যে পাওয়া যাবে। এছাড়া ব্যবসায়ী হাসিবুল ইসলামের কাছে ৩০০ বস্তা পেঁয়াজ পাওয়া গেছে তার মধ্যে ১৫০ বস্তা আগামীকালের মধ্যেই বিক্রির নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, রাজশাহীর বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ ভালো অবস্থায় আছে। আমরা কোনও ক্রমেই মজুদ করতে দিবো না। বাজার মনিটরিং জন্য ভ্রাম্যমাণ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

এর আগে আবু আসলামের নেতৃত্বে সাহেব বাজারে অভিযানে পরিচালনা করা হয়। এময় তারা বাজারের বিভিন্ন দোকানদারদের সঙ্গে কথা বলেন। অভিযানকালে অনেক দোকান ও আড়তই ছিল বন্ধ।
আলাউদ্দিন নামে এক ব্যবসায়ী বলেন, আমি আগে থেকেই ১৭০ থেকে ১৮০ টাকা কেজি দরে পাইকারি পেঁয়াজ বিক্রি করে আসছি। তবে আমাদের থেকে কিনে নিয়ে গিয়ে কেউ যদি অতিরিক্ত দামে বিক্রি করে তবে আমাদের কি করার আছে।

পেঁয়াজের এক ক্রেতা বলেন, পেঁয়াজের দাম সকালে ২১৫ থেকে ২২০ টাকায় কিনেছি, ম্যাজিস্ট্রেট আসার আগেও একই দাম ছিল। তবে অভিযান চালানোর পর ১৭০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এমন অভিযান সকালে চালানো হলেই বেশ ভালো হয়।

Comments are closed.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap
%d bloggers like this: