আজ ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২রা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং

পেট্রাপোল ইমিগ্রিশনের দিকে অভিযোগের আঙ্গুল ভারতীয় সংগঠনের

বাংলাদেশ থেকে বেনাপোল চেকপোষ্ট হয়ে ভারত গামী পাসপোর্টযাত্রীদের হয়রানির কারণে পেট্রাপোল চেকপোষ্ট ইমিগ্রেশন পুলিশের বিরুদ্ধে ৮ টি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে ভারতের পেট্রাপোল চেকপোষ্ট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন নামে একটি সংগঠন।

পেট্রাপোল ওয়েলফেয়ার আ্যাসোসিয়েশন অভিযোগে শুধু বাংলাদেশী পাসপোর্টযাত্রী নয় ভারতীয় পাসপোর্টযাত্রীদের ও হয়রানি মারধরের মত ঘটনা উল্লেখ করেছে অভিযোগ পত্রে।
মঙ্গলবার সে দেশের বিভিন্ন দফতরে অভিযোগপত্র দায়ের করেছে সংগঠনটি।

পেট্রাপোল ওয়েলফেয়ার আ্যাসোসিয়েশনের ৮ টি অভিযোগপত্র হলো
১. বাংলাদেশী যাত্রী যেদিন ভারতে যায় পরদিন তাকে দেশে ফিরতে দেওয়া হয়না। পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ আরো একদিন ভারতে তাদের থাকতে বলে। কিন্তু মাল্টিপোল ভিসায় এমন কোন বিধান নেই।
২. ঢাকা-কোলকাতা-আগরতলা রুটের যাত্রীসহ অন্যান্য যাত্রী প্রথমবার ভারতে যাওয়ার সময় তাদের ভারতে অবস্থানের কথা ঠিক মতো বলতে না পারলে এন্ট্রি রিফিউজ সিল মেরে দেশে ফেরত পাঠানো হয়।
৩. বাংলাদেশী পাসপোর্টযাত্রীদের এক বছরেরর মাল্টিপোল ভিসা থাকলে ও ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ তাদের ৫ থেকে ১০ দিন দেরী হলে কি করেছেন বিভিন্ন প্রশ্ন করে হয়রানি করছেন।
৪. সরাসরি চলাচলে বাসে কোন যাত্রীকে লাইনে দাঁড়াতে হয় না অথচ সাধারন যাত্রীদের ঘন্টার পর ঘন্টা দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করতে হয়।
৫. ভারতীয় যাত্রীদের বাংলাদেশে প্রবেশের সময় তাদের বিভিন্ন ডকুমেন্ট নিয়ে হয়রানি এমনকি মারধর ও করা হচ্ছে।
৬. ইমিগ্রেশন অফিসাররা অকারনে বাংলাদেশী-ভারতীয় সবার সাথে প্রচন্ড দুর্ব্যাবহার করে থাকেন।
৭. বাংলাদেশী নারী যাত্রীকে অনেক সময় তার মোবাইল নিয়ে দুই-তিন ঘন্টা অফিস রুমে বসিয়ে রাখা হয়।
৮. বাংলাদশী পাসপোর্টযাত্রী এক বছরের ভিসায় নিয়ম অনুযায়ী ভারতে ঢুকে এক নাগাদ তিনমাস থাকতে পারবে। কিন্তু ইমিগেশেণ কর্তৃপক্ষ কোন নিয়ম না মেনে দ্বিতীয় বার গেলে তাকে এন্ট্রি রিফিউজ সিল মেরে দেশে পাঠিয়ে দিচ্ছ।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন ওসি তরিকুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশে কোন পাসপোর্টযাত্রী হয়রানি নেই। দুর দুরান্ত থেকে আসা পাসপোর্টযাত্রীদের সেবা আমরা প্রদান করে থাকি। তাদের আমরা বেনাপোল ইমিগ্রেশনে কোন প্রকার বিলম্ব না করায়ে আনুষ্ঠানিক কাজ শেষে পাঠিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap
%d bloggers like this: