আজ ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৯শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

মাত্র ৮০ হাজার টাকার জন্যে হত্যা: চুনারুঘাটে শাশুড়ি হত্যার দায় স্বীকার করেছে জামাতা 

হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলার চাঞ্চল্যকর শ্বাশুড়ি হত্যার দায় স্বীকার করেছে জামাতা ওলিউর রহমান। শ্বাশুড়ি হত্যার ২ মাস পর আশুগঞ্জ থেকে সিআইডি পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে  আদালতে হাজির করলে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়।

হবিগঞ্জের অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শাহীনূর বেগম এর  আদালতে সন্ধ্যা পর্যন্ত জবানবন্দিতে সে তার শ্বাশুড়িকে হত্যার দায় স্বীকার করে। পরে জবানবন্দি শেষে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডির ইন্সপেক্টর আব্দুর রাজ্জাক বলেন, আদালতে  জবানবন্দিতে ওলিউর রহমান তার শ্বাশুড়ি জাহানারা বেগমকে হত্যার দায় স্বীকার করেছে। সে আদালতে বলেছে, প্রায়ই তার শাশুড়ি জাহানারা বেগমের সাথে টাকা পয়সা নিয়ে ঝগড়া হত। এক পর্যায় শাশুড়িকে  স্বর্ণের  কানের দুল কিনে দেয়ার প্রলোভন দিয়ে বাড়ি থেকে প্রথমে নোয়াপাড়া নিয়ে যায়।

সেখান থেকে দুজনে নাস্তা করে চুনারুঘাটে সাতছড়ি ওয়াচ টাওয়ার দেখানোর কথা বলে  জাহানারা বেগমকে টাওয়ারের দক্ষিণ দিকে নিয়ে যায় এবং সেখানে রশিদিয়ে বেধেঁ শ্বাশুড়ি জাহানারা বেগমকে হত্যা করে। সে আরো জানায়, ব্যাংক থেকে ৮০ হাজার টাকা ঋণ তুলে না দেয়ায়  অতিষ্ঠ হয়ে ওলিউর রহমান শাশুড়ি জাহানারা হত্যা করে। হত্যার পর ওলিউর তার স্ত্রী নিলুফাকে নিয়ে আশুগঞ্জ তালশহর চলে যায় এবং সেখানে ছদ্মবেশে একটি বেকারীতে ভ্যান চালক হিসেবে কাজ নেয় ।

এদিকে, মামলার বাদী জাহানারা বেগমের পুত্র ব্যাংক কর্মকর্তা মোঃ মিজানুর রহমান-এর দায়ের করা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কল লিস্টের মাধ্যমে আশুগঞ্জে অভিযান চালায়। দীর্ঘদিন ওই এলাকায় অনুসন্ধান চালিয়ে গতকাল দুপুরে তাকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারের পর ওলিউর রহমানের দেয়া তথ্যমতে তার স্ত্রী নিলুফা (২৪) কে উদ্ধার করে সিআইডি পুলিশ।  এ সময় পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে নিলুফা জানায় তার স্বামীরর বাড়ি ২নং চৌহমুনীর তুলশী পুর, গ্রামে। উল্লেখ্য গত  ২৯ মে   সাতছড়ির থেকে অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে চুনারুঘাট থানা পুলিশ।

পরের দিন স্থানীয় পত্রিকায় চুনারুঘাট অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধারের সংবাদ দেখে তার পুত্র  ব্যাংক কর্মকর্তা মোঃ মিজানুর রহমান চুনারুঘাট থানায় গিয়ে তার মায়ের বোরখা, জোতা ও ব্যাগ দেখে লাশ সনাক্ত করে। নিহত জাহানারা বেগম মাধবপুর উপজেলার দেবপুর গ্রামের আহাম্মদ জামানের স্ত্রী।

One response to “মাত্র ৮০ হাজার টাকার জন্যে হত্যা: চুনারুঘাটে শাশুড়ি হত্যার দায় স্বীকার করেছে জামাতা ”

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap
%d bloggers like this: